Sunday , December 4 2016
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
হোম / ধর্ম ও জীবন / ’জাকির নায়েকের দম বন্ধ হয়ে যাবার মত এক কঠিন প্রশ্ন করলো একজন হিন্দু তরুণী’ !

’জাকির নায়েকের দম বন্ধ হয়ে যাবার মত এক কঠিন প্রশ্ন করলো একজন হিন্দু তরুণী’ !

’জাকির নায়েকের দম বন্ধ হয়ে যাবার মত এক কঠিন প্রশ্ন করলো একজন হিন্দু তরুণী’ !

জাকির নায়েক অনেক বৎসর যাবৎ পবিত্র ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ের ব্যাখ্যা দিয়ে থাকেন, আর ইসলাম সম্পর্কে মানুষের ভুল ধারণাগুলো পরিষ্কার করেন। পবিত্র কোরআন, সহীহ হাদিস ও অন্যান্য ধর্মগ্রন্থের উদ্ধৃতি দিয়ে এবং সেই সাথে যুক্তি, উক্তি ও বিজ্ঞানের সাহায্যে। তিনি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। তাকে ধর্ম নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হলে, তিনি বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ হতে ব্যাখ্যা দিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।

এবার পিচটিভি এর একটি অনুষ্ঠানে তাকে একজন হিন্দু তরুণী প্রশ্ন করেন, বিভিন্ন জায়গায় সে দেখেছেন, যখন কোন মুসলমান ও হিন্দু ধর্মের দুইজন ব্যক্তির দেখা হয়, তখন মুসলমান ব্যক্তি হিন্দু ব্যক্তিকে মুসলমানে পরিবর্তন করতে চায় কিন্তু হিন্দু ব্যক্তি কখনও মুসলমান ব্যক্তিকে পরিবর্তন করতে চায় না। তারা নিজ নিজ ধর্ম বিশ্বাস করেন, কিন্তু মুসলমানেরা কেন হিন্দুদের মুসলমান করতে চায়?

জাকির নায়েকের উত্তর শুনে আপনিও অবাক হয়ে যাবেন। তিনি সেই তরুণীকে প্রশ্ন করেন, যখন ভার্সিটির একজন ছাত্রের সাথে স্কুলের একজন ছাত্রের দেখা হয়, তখন কে কাকে শিক্ষা দেন?

উত্তরে তরুণী বলেন, অবশ্যই ভার্সিটির ছাত্র স্কুলের ছাত্রটিকে শিক্ষা দিবে।

তখন জাকির নায়েক বলেন, মুসলমান ব্যক্তিরা নিজেদের সেই ভার্সিটির ছাত্র মনে করেন। তাই তারা সকলকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। এখানে আসল কথা হচ্ছে, প্রতিটি ধর্মে একে-অপরকে সাহায্য করার কথা বলা হয়েছে। ইসলাম ধর্মে বলা হয়েছে, তুমি সকলকে আল্লাহ্‌র পথে ডাকো। তাই তারা সকলকে জান্নাতের অংশীদার করার জন্য এই পথের আহ্বান করে। তারা সকলকে তাদের ধর্মের সাথে লড়াই করার জন্য এসব বলেন না। তারা শুধু আল্লাহ্‌র আদেশে সকলকে সে পথে ডেকে আনার চেষ্টা করে।

Check Also

ss

ব্রেকিং নিউজঃ রাজশাহীতে দাফনের সময় জেগে উঠে স্বামীর হাত ধরে ক্ষমা চাইলেন মৃত নারী,, কি ? বিশ্বাস হচ্ছে না ? তাহলে প্লিজ ভিডিওতে দেখেনিন !!

ব্রেকিং নিউজঃ রাজশাহীতে দাফনের সময় জেগে উঠে স্বামীর হাত ধরে ক্ষমা চাইলেন মৃত নারী,, কি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *