Sunday , December 4 2016
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
হোম / বিনোদন / ‘বাংলাদেশে এই প্রথম এমন একটা ছবি হচ্ছে’

‘বাংলাদেশে এই প্রথম এমন একটা ছবি হচ্ছে’

আনিসুর রহমান মিলন। মঞ্চ থেকে ছোটপর্দায় কাজ করে দর্শকের গ্রহণযোগ্যতা পেয়ে বর্তমানে বড়পর্দায় ব্যস্ত আছেন। অভিনয় দক্ষতার গুণে সব শ্রেনীর দর্শকের কাছে পেয়েছেন ভিন্ন ধরনের গ্রহণযোগ্যতা। এরইমধ্যে তার অভিনীত বেশকিছু ছবি দর্শক জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। একজন অভিনেতা শুধু  হিরো না, সব ধরনের অভিনয় করতে পারে বলে মনে করেন তিনি। বর্তমানে মিলন তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় ‘স্বপ্নবাড়ি’ নামে নতুন একটি ছবির কাজ করছেন। রাজধানীর হাতিরপুল সংলগ্ন রাস্তার পাশে একটি বাসায় গত ২রা অক্টোবর থেকে এ ছবির কাজ শুরু করেছেন তিনি। ছবিটিতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন জাকীয়া বারী মম। এর আগেও ‘প্রেম করব তোমার সাথে’ নামে একটি ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেন তারা। এ ছবিতে মিলনকে ভিন্ন একটি চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ছবিটিতে আমাকে একজন স্ট্রাগলিং হিরোর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। আর মম আমার স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন, যার স্বপ্ন থাকে একটা সুন্দর বাড়ির। অনেকটা হরর ও থ্রিলার গল্পভিত্তিক ছবি এটি। বাংলাদেশে এই প্রথম এমন একটা ছবি হচ্ছে। অংশু অনেক গুছিয়ে কাজ করছেন। হয়তো দর্শক এ ছবিতে নতুন একটা স্বাদ পাবেন। এদিকে বর্তমানে মিলন দ্য এ্যাড্রেস প্রযোজিত ইফতেখার চৌধুরীর ‘এক রাস্তা-ওয়ান ওয়ে’ ছবি নিয়েই বেশি ভাবছেন এ মুহূর্তে। কারণ আসছে ২১শে অক্টোবর ছবিটি সারাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। সবশেষ মিলন অভিনীত ইমদাদুল হক মিলনের ‘নদী উপাখ্যান’ উপন্যাস উপলম্বনে ও নাদের চৌধুরী পরিচালিত ‘লালচর’ ছবিটি গত বছরের ডিসেম্বরে মুক্তি পেয়েছিল। প্রায় দশ মাস পর নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে মিলনের। তাই এ ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদী তিনি। মিলন ছবিটি নিয়ে বলেন, এ ছবিতে আমার চরিত্রটা আলাদা ধরনের। বলতে গেলে একটা চরিত্র তিনটি বয়সকে তুলে ধরেছে। চরিত্রের নাম মিলন। একই সময়ে ছেলেটি দুর্ধর্ষ ও প্রেমিক। এ ছবির চরিত্রে আমার দুটা আলাদা দিক রয়েছে যা দর্শক দেখে উপভোগ করবেন বলে আশা করছি। তিনি আরও বলেন, রাফ ও ড্যাশিং চরিত্রে কাজ করতে আমি বেশ পছন্দ করি। আর এ ছবিতে ঠিক তেমনই একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। পিওর রোমান্টিক গল্প আমার পছন্দ না এবং আমি সেই ধরনের ছবি করতেও চাই না। ববির সঙ্গে তৃতীয়বারের মতো জুটি হয়ে কাজ করছেন মিলন। এর আগে ‘দেহরক্ষী’ ও ‘ব্ল্যাকমেইল’  ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছেন তারা। ‘ওয়ান ওয়ে’ ছবিতে ববির সঙ্গে পর্দায় তার রোমান্স কেমন থাকছে জানতে চাইলে মিলন বলেন, ছবিটিতে পরিপূর্ণ রোমান্স আছে। ছবির গল্পে দেখা যাবে, মূলত আমার আর ববির প্রেমের কারণে এক ধরনের জটিলতা তৈরি হয়। ববি খুবই গুণী একজন অভিনেত্রী। গান, কম্পোজিশন, কস্টিউম সব ক্ষেত্রে  বেশ কো-অপারেটিভ। একটা ভালো ছবি করার জন্য এমন অন্তরঙ্গ একজন অভিনয়শিল্পীর খুবই দরকার। ববির সঙ্গে এটা আমার তৃতীয় ছবি। আর ছবির পরিচালক ইফতেখার চৌধুরীরও বেশ প্রশংসা করেন মিলন। তার মতে, বন্ধুসুলভ একজন মানুষ এবং টেকনিক্যাল দিক দিয়ে খুবই উন্নত একজন পরিচালক তিনি। কাজে ভীষণ মনোযোগী একজন পরিচালক যা আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে খুবই প্রয়োজন। সামনে মিলন অভিনীত আরও কিছু ছবি মুক্তি পেতে যাচ্ছে।  এরইমধ্যে ‘রাজনীতি’, ‘ক্রাইম রোড’, ‘টার্গেট’ ও ‘রাত্রীর যাত্রী’ নামে ছবিগুলোর কাজ শেষ করেছেন তিনি। সবশেষে মিলন বলেন, আমার বিশ্বাস দর্শক ‘ওয়ান ওয়ে’ ছবিটি খুব উপভোগ করবেন। দর্শকরাই আমার শক্তি। তারা আমাকে এতদিন ধরে যেভাবে সাপোর্ট করেছেন তাতে আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তাদের জন্যই আমি চলচ্চিত্রে কাজের উৎসাহ পেয়েছি। আর এভাবে সারাজীবন ভালো কিছু কাজ উপহার দিতে চাই।

Check Also

amir

দঙ্গলের ট্রেলারটা দেখেছেন?

নারী শক্তির ওপর ছবি তৈরি বর্তমানে ট্রেন্ড। এবার মুক্তি পেল বহু প্রতীক্ষিত ছবি দঙ্গলের ট্রেলার। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *