“নোয়াখালীতে কুরআনে হাফেজা মাদ্রাসা শিক্ষিকা গণধর্ষণ, ২ দিনেও গ্রেফতার হয়নি কেউ”
নোয়াখালী সংবাদদাতা: নোয়াখালীতে এক মহিলা মাদ্রাসার শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের দুই দিন অতিবাহিত হলেও এ ঘটনার সাথে জড়িত কেউ গ্রেফতার হয়নি। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে।
নোয়াখালী জেলা অতিরিক্ত পুলিশসুপার জহিরুল ইসলাম বলেন,
ঘটনায় ভিকটিম পরিবারের নিকট পুলিশ গেলেও তারা মামলা করতে অনিহা প্রকাশ করছে। ধারণা করা হচ্ছে লজ্জা এবং ভয়ে তারা মামলা করতে চাচ্ছেনা। তাই মামলা না হওয়া পর্যন্ত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছেনা।
উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার জিরতলী ইউনিয়নের খাতেনু জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার শিক্ষিকা কোরানে হাফেজা (১৫) তার মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়ে মাদ্র্রাসা থেকে বাড়ী যাওয়ার জন্য দ্রত রাস্তায় বের হয়।
এসময় মাদ্রাসার সন্নিকটে জমাদার বাড়ির সামনে রাস্তায় যানবাহনের অপেক্ষায় থাকা ওই মাদ্রাসা শিক্ষিকাকে জোরপূর্বক তুলে নেয় মধ্যম জিরতলী গ্রামের কোয়ার বাড়ীর ইউছুপের ছেলে মোরশেদ (২৩), একই গ্রামের বেপারী বাড়ির তরিক উল্লার ছেলে বাবুল (২৫) এবং একই গ্রামের জমাদার বাড়ীর সালাউদ্দিন (৩০)।
পরে তারা শিক্ষিকাকে পার্শ্ববর্তী নির্জন স্থানে নিয়ে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগে জানা যায়। ঘটনার প্রায় ১ঘণ্টা পর এলাকাবাসী টের পেয়ে ওই শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে জীরতলী বাজারে নিয়ে যায়।
পরে এলাকাবাসী তাকে বাড়ির ঠিকানায় পাঠানোর ব্যবস্থা করে।
স্থানীয়রা জানায়, এ ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিতে চাইলে পরে মাদ্রাসার পক্ষ থেকে একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়,
ডায়েরী নং-২৩৬৭।
সোর্স :-www.digantabarta24.com/2017/10/news-5.html
আজ ইমাম সাহেবের বোরখাওয়ালী হাফেজা মেয়ে গণধর্ষিত হয়েছে বলেই কি সবাই চুপ করে আছেন?
এই বোরখাওয়ালী হাফেজা বোনের পরিবর্তে যদি আটা ময়দা মাখানো কোন সুন্দরী ধর্ষিত হইত তাহলে তার প্রতিবাদ করার ভাইয়ের অভাব হইত না(!)
ছি ছি ছি…
নোয়াখালীর ওই অসহায় ইমাম সাহেবের হাফেজা মেয়ে যেনো ন্যায্য বিচার পায় সে জন্য প্রত্যেকের টাইম লাইনে প্রতিবাদী পোস্ট দেখতে চাই। এই নিউজটি প্রভাবশালীরা ধামাচাপা দিতে চাচ্ছে। তাই এই নিউজটি ভাইরাল করা খুবই জরুরি।
#Facebook, Twitter, Google সহ সবখানে ছড়িয়ে দিন….
আমার ফ্রেন্ড এবং ফলোয়ারদের “অনুরোধ” করছি নির্যাতিত হাফেজা বোনটির পাশে দাড়ান এবং প্রতিবাদ মূলক পোস্ট করে নিউজটি ভাইরাল করেন, যাতে করে ওই নরপশু ধর্ষকরা কঠিন শাস্তি পায়।
#এখন সময় প্রতিবাদী হোন, ঘুমন্ত বিবেক কে জাগ্রত করুন, আর না হয় এর পরিণতি হবে ভয়াবহ…!!!
(শেয়ার করুন)