Non Govt Teacher-Employee Welfare-Retirement Benefit Information: বেসরকারী MPO ভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ-অবসর গ্রহণের সুবিধার তথ্য পাওয়া যাবে www.ngte-welfaretrust.gov.bd ও www.terbb.gov.bd থেকে।

Non Govt Teacher-Employee Welfare-Retirement Benefit | বেসরকারী MPO ভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী অবসর ও কল্যাণ সুবিধা

সম্মানিত ভিজিটরস, আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনি বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড এবং বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট সম্পর্কীত প্রয়োজনীয় তথ্যসমূহ জানতে পারবেন। এছাড়াও কল্যাণ ও অবসর সুবিধা প্রপ্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করার নিয়ম সহকারে হালনাগাদ তথ্য জানতে পারবেন।

Non-Government Teacher Employee Retirement Benefit Board

বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড কর্তৃক সকল এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ে, অবসর সুবিধা (Retirement Benefit) প্রদান করা হয়ে থাকে।

ইতিহাস ও কার্যাবলি

বাংলাদেশের শিক্ষা ও শিক্ষক সমাজকে আরো একধাপ এগিয়ে নিতে, এবং বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষক ও কর্মচারীগনের জীবনের আর্থিক নিরাপত্তা ও অবসরকালীন সময়কে মূল্যায়ন করার লক্ষ্যে, ২০০২ সালের ২৭ নং আইনের মাধ্যমে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড গঠন হয়। এবং উক্ত আইনের ১৫ নং ধারার প্রদত্ত ক্ষমতা বলে প্রণীত প্রবিধান-২০০৫ অনুযায়ী ‘‘বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা’’ চালু হয়।

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড শিক্ষা মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণাধীন একটি ‘সংবিধিবদ্ধ’ প্রতিষ্ঠান। ঢাকার পলাশীতে বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য পরিসংখ্যান ব্যুরো(ব্যানবেইস) এর নীচতলায় মাত্র ৫টি কক্ষ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালিত হচ্ছে। এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের পেনশনের আওতায় আনার জন্য ২০০২ সনের ২৭ নং আইনের ধারা ১৫ তে প্রদত্ত ক্ষমতা বলে “বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড’’ প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রবিধানমালা-২০০৫ এর উপ-প্রবিধান-১০(১) অনুযায়ী এমপিওভূক্ত অবসরপ্রাপ্ত বেসরকারি শিক্ষক ও কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ের অবসর সুবিধা প্রদান বর্তমানে চালু আছে। প্রবিধান-১০এর(৪) অনুযায়ী ১লা জানুয়ারী ১৯৮০সাল থেকে ও প্রবিধান-১০এর(৭) মোতাবেক ২৫বছর এমপিওভূক্ত চাকুরী গনণা করে সর্বশেষ বেতন স্কেল অনুযায়ী প্রাপ্যতা নির্ধারণ করে অবসর সুবিধা প্রদান করা হয়।

এমপিও ভুক্ত বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ে, অবসর সুবিধার আওতায় অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীগণ চাকুরীর বয়স ও বেতন-স্কেল অনুযায়ী একটি নির্ধারিত অংকের অর্থ (Retirement Benefit) এককালীন পেয়ে থাকেন। আর এই কার্যক্রম পরিচালনা করে Non Government Teacher Employee Retirement Benefit Board কর্তৃপক্ষ।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর এবং কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর এর অধীনে এমপিওভূক্ত বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও ভকেশনাল ইনস্টিটিউটসমূহের এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচরীদের অবসর সুবিধা প্রদানের কার্যক্রম এই বোর্ডের আওতাভূক্ত। প্রায় ৩৬(ছত্রিশ) হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় সাড়ে ৫(পাঁচ) লক্ষ শিক্ষক-কর্মচারীদের কাছ থেকে ৬% হারে চাঁদা কর্তন করে অবসরপ্রাপ্তদের সুবিধাদি প্রদান করা হচ্ছে।

প্রবিধানমালা-২০০৫ এর উপ-প্রবিধান-১০(১) অনুযায়ী এমপিওভূক্ত অবসরপ্রাপ্ত বেসরকারি শিক্ষক ও কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ের সুবিধা প্রদান করা হয়। এমপিও ভুক্ত শিক্ষক কর্মচারী গণের সময়মত অবসর সুবিধার অর্থ প্রদান করা, বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড এর প্রধান কাজ।

প্রবিধান-১০ এর উপ-প্রবিধান(১) চাঁদা প্রদানকারী কোন শিক্ষক বা কর্মচারীগণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চাকুরী হইতে অবসর গ্রহণ করলে তিনি এমপিওভুক্ত হইবার পর যত বৎসর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করেছেন তার ভিত্তিতে এককালীন আর্থিক সুবিধাদি প্রাপ্য হন, শিক্ষক-কর্মচারীদের থেকে চাঁদা কর্তন করা হয় ০১/০১/২০০৫ সাল থেকে কিন্তু সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে ০১/০১/১৯৮০ সাল থেকে।

  • Non-Government Educational Institutions Teachers and Employees Retirement Benefits Board Oficial Website Link: http://www.terbb.gov.bd/

Non Govt. Teacher Welfare-Trust-Retirement Benefit-Board

বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড এর মাধ্যমে এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ে, নিম্নোক্ত হারে অবসর সুবিধা প্রাপ্ত হবেন। অবসর ও কল্যান সুবিধার মূল তালিকাটি পোষ্টের নিচের দিকে সংযুক্ত করা হল।

Non-Government Teachers & Employee Welfare Trust

১৯৯৯ সালের ১ নভেম্বর এক প্রজ্ঞাপনের দ্বারা বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট এর গোড়াপত্তন করা হয়। পরে ১৯৯৯ সালের ১ নভেম্বর এক প্রজ্ঞাপনের বলে Non-Government Teachers & Employee Welfare Trust এর কার্যক্রম শুরু করা হয়। ২০০২ সালের ১ ডিসেম্বর গেজেট ও ২১/০৬/২০০৬ সালের প্রজ্ঞাপন দ্বারা কল্যাণ ট্রাস্ট এর বিভিন্ন বিষয়কে সংশোধন করা হয়। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট এর মাধ্যমে এমপিও ভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীদের কল্যাণ সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে। বর্তমানে Non-Government Teachers & Employee Welfare Trust এর অবস্থান BANBEIS ভবন, জহির রায়হান রোড, ঢাকা।

নতুন স্কেলে কল্যাণ সুবিধা প্রদান : বর্তমান ট্রাস্টি বোর্ড অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীদের ২০০৯ সালে পদ ও নতুন পে-স্কেল অনুযায়ী কল্যাণ সুবিধা প্রদান করছে। নতুন পে-স্কেলে সরকার থেকে শুধু বেতনের টাকা প্রদান করা হয়েছে। কল্যাণ সুবিধা বা অবসরের জন্য কোন টাকা দেওয়া হয়নি। কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব তহবিল থেকে কল্যাণ সুবিধার টাকা প্রদান করা হচ্ছে। ফলে ২০০৯-২০১০ অর্থ বছরের নতুন স্কেলে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীদের কল্যাণ সুবিধার দাবি মেটাতে কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব ফান্ড থেকে অতিরিক্ত প্রায় ৬০ (ষাট) কোটি টাকা প্রদান করতে হচ্ছে।

কল্যাণ ট্রাস্টকে ডিজিটালে উন্নীত করা : অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীদের কল্যাণ সুবিধার টাকা সহজে পাওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতায় এক্সেস টু ইনফরমেশন (A2I) প্রজেক্টের মাধ্যমে কল্যাণ ট্রাস্টকে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে । এর ফলে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কর্মচারীগণ দেশের প্রত্যন্ত- অঞ্চল থেকে অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করে অতি অল্প সময়ের মধ্যে তাদের নিজ নিজ ব্যাংক হিসাব নম্বরে তাদের প্রাপ্য টাকা পাচ্ছেন।

অনিয়ম, ঘুষ ও দূর্নীতি মুক্ত করা : কল্যাণ ট্রাস্টে অতীতে অনিয়ম, ঘুষ, দূর্নীতির অসংখ্য অভিযোগ ছিল। যেমন একজনের টাকা অন্যজন নিয়ে যাওয়া, একই ব্যক্তি একাধিকবার চেক গ্রহণ, আবেদনপত্রের সিরিয়াল অনুসরণ না করা প্রভৃতি। বর্তমান ট্রাস্টি বোর্ড দায়িত্ব গ্রহণের পর এইসব অনিয়ম, ঘুষ, দূর্নীতি কঠোর হস্তে- দমন করা হয়েছে। এখন “আগে আসলে আগে পাবেন” ভিত্তিতে আবেদনের ক্রমানুসারে কল্যাণ সুবিধা প্রদান করা হয়ে থাকে।

  • Non Government Educational Institution Teachers and Employees Welfare Trust Oficial Website Link: http://www.ngte-welfaretrust.gov.bd/

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী অবসর ও কল্যাণ ট্রাস্ট সুবিধার তালিকা

শিক্ষক কর্মচারীদের মূল বেতনের সাথে ৫% ইনক্রিমেন্ট যোগ হওয়ার ফলে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও শিক্ষক কর্মচারী অবসর বোর্ড থেকে শিক্ষক কর্মচারীদের সুবিধা প্রাপ্তিও সেই হারে বৃদ্ধি পাবে। বর্তমানে কল্যাণ ও অবসর সুবিধা প্রাপ্তি এবং ৫ বছর ও ১০ বছর পরে কল্যাণ ও অবসর সুবিধা প্রাপ্তির তুলনামূলক বিবরণী নিচে দেয়া হলঃ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী অবসর ও কল্যাণ ট্রাস্ট সুবিধার তালিকা

এছাড়াও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট এর মাধ্যমে যে যে সুবিধা পাওয়া যায়-

  • মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সুবিধা প্রদান।
  • অসুস্থ জনিত কল্যাণ সুবিধা প্রদান।
  • হজ পালনে কল্যাণ সুবিধা প্রদান।
  • তীর্থ পালনে কল্যাণ সুবিধা প্রদান।

Non-Govt Teacher Welfare-Retirement Benefit Online Application

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে, নাগরিকের সকল সুযোগ সুবিধা এখন অনলাইন ভিত্তিক করার চেষ্টা চলছে। এছাড়াও অনলাইন ভিত্তিক সুবিধা প্রদান ও গ্রহনের অন্যতম ভাল দিক হচ্ছে, দূর্নীতি কমিয়ে আনা। এমপিও ভুক্ত বেসরকারী স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মচারীদের অবসরকালীন ভাতা ও কল্যাণ ভাতা প্রদানের প্রক্রিয়গুলো এখন অনলাইন ভিত্তিক।

বেসরকারী এমপিও ভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীগণ তাদের অবসরকালীন ও কল্যন ভাতা প্রাপ্তির জন্য এখন অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এছাড়াও পদত্যাগ জনীত, মৃত জনীত ও পদচ্যূত জনীত শিক্ষক-কর্মচারীগণকেও তাদের যাবতীয় ভাতা প্রাপ্তির জন্য একই প্রক্রিয়ায় অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

MPO ভুক্ত বেসরকারী শিক্ষক-কর্মচারীগণ অবসরকালীন সময়ে, তাদের অবসরভাতা প্রাপ্তির জন্য অনলাইনের মাধ্যমে, Non Government Teacher Employee Retirement Benefit Board এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের এপসে প্রবেশ করে, প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে আবেদন করতে হবে।

  • Non Government Educational Institutions Teachers and Employees Retirement Benefits Board Oficial Web Application Link: http://apps.terbb.gov.bd (অবসরভাতার আবেদনের জন্য এই সাইটে যেতে হবে।)

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর এবং কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর এর অধীনে এমপিওভূক্ত বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও ভকেশনাল ইনস্টিটিউটসমূহের এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচরীদের অবসরকালীন সময়ে, তাদের কল্যাণ ভাতা প্রাপ্তির লক্ষ্যে, Non Government Teacher Employee Retirement Benefit Board এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের এপসে প্রবেশ করে, প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

  • Non-Government Educational Institution Teachers and Employees Welfare Trust Oficial Web Application Link: http://apps.ngte-welfaretrust.gov.bd (কল্যানভাতার জন্য এখানে আবেদন করতে হবে।)

উপরে দেয়া দুটি ওয়েব এপ্লিকেশনা সাইটের ইন্টারফেস দেখতে হুবহু একই, এবং আবেদন ফরম দুটি পূরন করা খুবই সহজ। সাধারন ইন্টানেট ব্যবহার করতে এমন যে কোন ব্যাক্তি ই উপরের লিংকে প্রবেশ করে অবসর ও কল্যাণ ভাতা প্রাপ্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। উপরোক্ষ ঠিকানায় প্রয়োজনীয় তথ্য ও ডকুমেন্ট সংযুক্ত করে খুব সহজে অবসর ও কল্যাণ ভাতার আবেদন করা যাবে। আবেদন করার আগে এর প্রয়োজনীয় তথ্য, নিয়মকানুন ও ডকুমেন্টগুলো সঠিক ফরম্যাটে সংগ্রহ করে রাখুন।

অবসরপ্রাপ্ত বেসরকারি এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীগণের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলছি, আপনি যদি নিজে আবেদন করতে না পারেন তাহলে, আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের মাধ্যমে একজন দক্ষ বিশ্বস্ত ব্যাক্তিকে আপনার কাজের জন্য হায়ার করে নিবেন। কোন প্রতারকের কাছে ঘুর ঘুর করবেন না। অনৈতিক অর্থলোভী প্রতারকদের কোন প্রকার সুযোগ দিবেন না।

আর যদি আপনি নিজেই অবসরভাতা ও কল্যানভাতার জন্য অনলাইনে আবেদন করতে চান সেক্ষেত্রে, এখানে ক্লিক করে বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড কর্তৃক প্রদত্ত অবসর সুবিধার আবেদনের প্রয়োজনীয় তথ্যাদি ভাল করে জেনে নিন। এবং কল্যানভাতার ক্ষেত্রে, এখানে ক্লিক করে বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক প্রদত্ত কল্যানভাতার সুবিধার আবেদনের প্রয়োজনীয় তথ্যাদি ভাল করে জেনে নিন।

বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড এবং বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট এরং অবসর ও কল্যাণ ভাতার জন্য অনলাইনে আবেদন করতে গিয়ে কোন রকম অসুবিধায় পড়েন সেটি, নিচের কমেন্ট বক্সে আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

Non Govt Teacher Welfare-Retirement Benefit সম্পর্কিত আরো কোন তথ্য পেতে চাইলে নিচের কমেন্ট বক্সে আমাদের জানান। অথবা আপনি এ পোস্টটি পড়ার পরে যদি মনে করেন কোন গুরুত্বপূর্ন তথ্য বাদ পড়ে গেছে, তাহলে সেটি আমাদের জানান। আপনারা কোন গুরুত্বপূর্ন বিষয়ে জানার আগ্রহী হলে, সাধ্য অনুযায়ী সে সম্পর্কিত নতুন আর্টিকেল আগামী পর্বে তুলে ধরার চেষ্টা করবো, ইনশাআল্লাহ।

এই পোষ্টটি ফেসবুক, টুইটার সহ সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ার শেয়ার করে অন্যদের জানতে সাহায্য করুন।

এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচরীদের জন্য গুরুত্বপূর্ন কিছু টিউটোরিয়ালঃ